১৪ই জুলাই, ২০২০ ইং , ৩০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ




৩ এপ্রিল, ২০২০ , ২০:৪৪ আপডেট: ৩ এপ্রিল, ২০২০ ,২০:৪৪

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সঙ্কট তৈরি হয়। অসাধু ব্যবসায়ীরা সুযোগ পেয়ে মূল্যবান এই জিনিসটির দাম বাড়িয়ে দেন। যদিও এর বিকল্প অনেক কিছু ব্যবহার করে হাত জীবাণুমুক্ত করা যায়, কিন্তু জনমনে বিষয়টি নিয়ে আতঙ্ক কমেনি। চলুন জেনে নিই বাড়িতেই কীভাবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করা যায়। তৈরি হ্যান্ড স্যানিটাইজারগুলো শুষ্ক এবং ঠাণ্ডা জায়গায় রাখলে বছর দুয়েক কার্যকর থাকবে।

হ্যান্ড স্যানিটাইজার জেল তৈরির পদ্ধতি

উপকরণ

ক) আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল (স্যানিটাইজারের মিশ্রণটিতে কমপক্ষে ৬০ শতাংশ অ্যালকোহল থাকতে হবে, বেশি অ্যালকোহল ব্যবহার করাও ক্ষতিকর)

খ) অ্যালোভেরা জেল

গ) টি ট্রি অয়েল

পদ্ধতি

৩ ভাগ আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল, ১ ভাগ অ্যালোভেরা জেলে মিশ্রিত করুন। খ) তাতে কয়েক ফোঁটা টি ট্রি অয়েল দিন। গ) ভালোভাবে উপাদানগুলো মিশিয়ে ব্যবহার করুন।

হ্যান্ড স্যানিটাইজার স্প্রে (WHO দ্বারা প্রস্তাবিত)

উপকরণ

ক) আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল

খ) গ্লিসারল

গ) হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড

ঘ) ডিস্টিল ওয়াটার

ঙ) স্প্রে বোতল

পদ্ধতি

২ টেবিল চামচ গ্লিসারলের সঙ্গে অ্যালকোহলটি মিশ্রিত করুন। এরপর তাতে ১ টেবিল চামচ হাইড্রোজেন পারক্সাইড মেশান এবং ডিস্টিল ওয়াটার বা ফোটানো পানি দিন, ঠাণ্ডা করে দেবেন। এরপর, মিশ্রণটি স্প্রে বোতলের মধ্যে ঢালুন।

যেভাবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করবেন-

  • ঘন ঘন এবং ভালো করে হাত ধোবেন।
  • দোকান থেকে কেনা হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৬০ শতাংশের বেশি অ্যালকোহল রয়েছে কি না তা নিশ্চিত করুন।
  • হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রয়োগ করার আগে আপনার হাত শুকিয়ে নিন।

যা করবেন না

  • চিটচিটে বা নোংরা হাতে স্যানিটাইজার ব্যবহার করবেন না।
  • হ্যান্ড ওয়াশিং বা হ্যান্ড স্যানাইটাইজারের পাশাপাশি বেবি ওয়াইপসও সমান কাজ করবে, এটা আশা করবেন না।
  • হাত না ধুয়ে আপনার চোখ, নাক বা মুখ স্পর্শ করবেন না।
  • ৬০ শতাংশ অ্যালকোহলের বেশি ব্যবহার করবেন না। ১০০ শতাংশ অ্যালকোহল ব্যবহার করলে  অ্যালকোহল খুব দ্রুত বাষ্প হয়ে যায়। তখন এটি আপনার ত্বকে খুব দ্রুত শুকিয়ে যাবে এবং জ্বালা-পোড়ায় পরিণত হবে।