১১ই জুলাই, ২০২০ ইং , ২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ




৮ এপ্রিল, ২০২০ , ০৭:০২ আপডেট: ৮ এপ্রিল, ২০২০ ,০৭:০২

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কোনো টিকা বা প্রতিষেধক এখনও আবিষ্কার হয়নি। তাই এ রোগকে প্রতিরোধ করাই হচ্ছে সবচেয়ে উত্তম উপায়।

এই ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে এখন প্রশ্ন হলো– হাত জীবাণুমুক্ত করতে কোনটি বেশি কার্যকর– সাবান নাকি স্যানিটাইজার।

আসুন জেনে নিই-

১. করোনাভাইরাসের সংক্রমণ, সোয়াইন ফ্লু, গ্যাস্ট্রোএন্ট্রাইটিসের মতো রোগ ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের ফলে ছড়ায়। এসব জীবাণু মূলত ছড়ায় হাত থেকেই। এ জীবাণু নির্মূল করার ক্ষমতা হ্যান্ড স্যানিটাইজারের নেই। এ ক্ষেত্রে সাবান দিয়ে ভালো করে হাত, মুখ ধোয়াটাই সবচেয়ে ভালো।

২. শিশুরা খেলাধুলার পর বাড়ি ফিরলে সাবান দিয়ে হাত-পা, মুখ ভালো করে ধোয়াতে হবে।

৩. হ্যান্ড স্যানিটাইজার বা সাবানের মধ্যে থাকে অ্যান্টিসেপটিক ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট ক্লোরেক্সিডিন নামের একটি উপাদান, যা ৪ শতাংশের বেশি হলেই ত্বকের সমস্যা হতে পারে।

৪. হ্যান্ড স্যানিটাইজার অনেক সময় ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ার সঙ্গে উপকারী ব্যাকটেরিয়াও মেরে ফেলে। ফলে অনেক ক্ষেত্রে ত্বকের ক্ষতির আশঙ্কা বেড়ে যায়।

৫. বেশিরভাগ হ্যান্ড স্যানিটাইজারে রয়েছে ‘সিনথেটিক ফ্রেগরেন্স’ যার রাসায়নিক উপাদান যা শরীরে সঠিক পরিমাণে হরমোন উত্পাদনে বাধা সৃষ্টি করে।

৬. বেশিরভাগ হ্যান্ড স্যানিটাইজারে মূল উপাদান হলো অ্যালকোহল, যা ত্বক জীবাণুমুক্ত করতে সাহায্য করে। কিন্তু ওই অ্যালকোহলের প্রভাবেই ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা নষ্ট হয়। ফলে ত্বক শুষ্ক হয়ে পড়ে।

৭. হাতের কাছে পানি না থাকলেই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন। বাদবাকি সময় সাবান দিয়েই হাত ভালো করে জীবাণুমুক্ত করুন।